October 28, 2021, 8:54 am
তাঁজাখবর
বগুড়ায় একাধিক শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মুদি দোকানী গ্রেফতার উজিরপুরে কালিহাতায় ঐতিহ্যবাহী সিকদার বাড়িতে ইউপি সদস‍্য প্রার্থী সালামের উঠান বৈঠক চৌহালীতে নবাগত উপজেলা শিক্ষা অফিসারের যোগদান গোমস্তাপুরে বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মাঝে সম্প্রীতির বন্ধন অটুট রাখার লক্ষ্যে সম্প্রীতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে উজিরপুরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে মনোনীত প্রার্থীদের শুভেচ্ছা জানাতে বিমান বন্দরে নেতাকর্মীদের ঢল শাজাহানপুরে উপজেলা ছাত্রদলের আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত মডেল মেডিসিন শপ স্থাপন বিষয়ে সাড়া জাগিয়েছে অনলাইন ভিত্তিক জুম পুশিক্ষন কার্যক্রম যমুনার পাড়ে দাড়িয়ে থাকা যে দশজন নৌকায় উঠতে পারলেন বাগমারায় উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে চায় আল- মামুন বাগমারায় এক গৃহবধূ নির্যাতনের শিকার

বঙ্গবন্ধু হত্যায় মোশতাকের সঙ্গে জিয়াউর রহমানও জড়িত: প্রধানমন্ত্রী

সংবাদদাতার নাম:
  • প্রকাশিত: রবিবার, আগস্ট ২৩, ২০২০
  • 30 দেখা হয়েছে:

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট

পঁচাত্তরের ১৫ আগস্টে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে নৃশংসভাবে হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে খন্দকার মোশতাকের সঙ্গে জিয়াউর রহামানও জড়িত ছিলেন বলে আবারও মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন, ‘যে আদর্শ ও লক্ষ্য নিয়ে বঙ্গবন্ধু এই দেশকে স্বাধীন করেছিলেন, সেই আদর্শ ও লক্ষ্য ধ্বংস করাই ছিল খুনিদের লক্ষ্য। তারা কখনোই চায়নি বাংলাদেশের উন্নয়ন হোক। এই চক্রান্তের সঙ্গে খন্দকার মোশতাক যেমন জড়িত তেমনই জিয়াউর রহমানও জড়িত ছিলেন। এ কারণে যে, খন্দকার মোশতাক যখন অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে তখন জিয়াউর রহমানকে সেনাবাহিনীর প্রধান করে।’

রবিবার (২৩ আগস্ট) সকালে গণভবন থেকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় ভার্চ্যুয়াল মাধ্যমে যুক্ত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

জাতির জনকের ৪৫তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক উপলক্ষে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।

১৫ আগস্টের হত্যাকাণ্ডের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘পাকিস্তানিরা পারেনি। কিন্তু যাদের প্রতি জাতির পিতার বিশ্বাস ছিল ভালোবাসা ছিল তারাই জাতির পিতাকে হত্যা করে বিশ্বাসঘাতকতা করলো।’

তিনি বলেন, ‘যিনি আমাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছিলেন, একটি জাতি হিসেবে আত্মমর্যাদার সুযোগ করে দিয়েছিলেন, এদেশের মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে কাজ করেছিলেন তাঁকেই খুনিরা হত্যা করলো।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘খালেদ মোশারফ থেকে শুরু করে সেনাবাহিনীতে মুক্তিযুদ্ধে যাদের সবচেয়ে বেশি অবদান ছিল তাদেরকে বেছে বেছে হত্যা করেন জিয়াউর রহমান। সেনাবাহিনীর মেধাবী অফিসারদেরও একে একে হত্যা করা হয়েছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘জিয়াউর রহমান কোনোদিনও সেইসব সেনা কর্মকর্তাদের পরিবারের খোঁজখবর নেননি। এছাড়া ছাত্রলীগ-যুবলীগ এবং আওয়ামী লীগের কত নেতাকর্মীকে গুম করেছে তার শেষ নেই।’

আলোচনা সভার শুরুতেই শোকাবহ যন্ত্রসংগীত পরিবেশন করা হয়। সূচনা বক্তব্য রাখেন উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির সমন্বয়ক ড. কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী। এরপর বঙ্গবন্ধুর কর্মময় ও সংগ্রামী জীবনের ওপর আলোকচিত্র প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি করেন আসাদুজ্জামান নূর এমপি।

এছাড়া আলোচনা সভায় অংশগ্রহণ করেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও ১৪ দলের সমন্বয়ক আমির হোসেন আমু, আইন বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. আবু মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন।

অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। © All rights reserved © 2020 ABCBanglaNews24
Theme By bogranewslive
themesba-lates1749691102