May 22, 2022, 2:49 am
তাঁজাখবর
শাজাহানপুরে আড়িয়া ইউনিয়নে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত শাজাহানপুরে কুখ্যাত ফেনসিডিল ব্যবসায়ী সোহেল গ্রেফতার শাজাহানপুরে এক মণ ধানের দামে মিলছে না একজন শ্রমিক  বগুড়ায় কালবৈশাখী ঝড়ে  ঝরে পড়লো দুইটি তরতাজা প্রাণ শাজাহানপুরে সারা মনি’র জন্মদিনে দোয়া দেশের মানুষের মুক্তির জন্য খালেদা জিয়ার মুক্তির বিকল্প নেই -আজাদ সাংবাদিক ও প্রভাষক নাহিদ আল মালেকের এলএলবি ডিগ্রি লাভ বগুড়ায় বিভাগীয় সাংস্কৃতিক দক্ষতা ও প্রশিক্ষন কর্মশালা সম্পন্ন শাজাহানপুরে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন শাজাহানপুরে সৎ বাবার সঙ্গে মায়ের তালাকের কারণে শিশু সামিউলকে হত্যা

শাজাহানপুরে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা বন্ধের দাবিতে গ্রামবাসীর মানববন্ধন

সংবাদদাতার নাম:
  • প্রকাশিত: সোমবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২১
  • 59 দেখা হয়েছে:

 

মিজানুর রহমান মিলন :

বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার আমরুল ইউনিয়নের  ফুলকোট গ্রামে নির্বাচনী বিরোধের জের ধরে দুই কৃষককের শিমের মাঁচা কর্তনের ঘটনায় দুই পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ উঠেছে।

অপরদিকে দায়ী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও নির্বাচন পরবর্তি সহিংসতা বন্ধের দাবীতে ফুলকোট গ্রামের নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম নয়নের নেতৃত্বে সোমবার (৬ ডিসেম্বর) বিকেলে উপজেলা পরিষদের সামনে বিক্ষোভ শেষে মানবন্ধন করেছে গ্রামবাসি।

জানা গেছে, গত শনিবার গভীর রাতে উপজেলার ফুলকোট পুর্বপাড়া গ্রামের মৃত ওমর আলীর ছেলে আজাহার আলীর ও তার ভায়রা একই গ্রামে আল মাহমুদ শাহের ছেলে আব্দুল হামিদ ওরফে কাজলের ৩৪ শতক জমির শিমের মাঁচা কেটে ফেলে দূর্বৃত্তরা। এঘটনায় আজাহার আলী বাদি হয়ে ১০জনকে অভিযুক্ত করে রবিবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।

ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক আজাহার আলী জানান, তিনি তার বাড়ির পূর্বপাশে ১৬ শতক জমিতে শিমের চাষ করেছেন। রবিবার সকালে জমিতে গিয়ে দেখতে পান তার সমস্ত শিমের গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। একই সাতে তার ভায়রা আব্দুল হামিদ ওরফে কাজলের ১৮ শতক জমির শিমের মাঁচা কেটে ফেলা হয়। এতে করে তাদের প্রায় আড়াই লক্ষ টাকা ক্ষতি হয়েছে।

তিনি আরো জানান, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মেম্বার প্রার্থী নজরুল ইসলাম নয়নের কর্মী ছিলেন তারা। এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর কর্র্মীদের সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এই বিরোধের জের ধরেই ক্ষতি করার উদ্যেশ্যে তাদের শিমের মাঁচা কেটে ফেলা হয়েছে বলে জানান তিনি।

আবুল কাছেম সরকার নামে ফুলকোট গ্রামের এক কৃষক বলেন, গ্রামে এর আগে এরকম ঘটনা ঘটেনি। শত্রুতা বাড়িয়ে দিতে তৃতীয় পক্ষের কোন দূস্কৃতিকারী এই ঘটনা ঘটিয়ে থাকতে পারে।

সদ্য পরাজিত ইউপি সদস্য জাহিদুর রহমান উজ্জল জানান, গাছ কে কেটেছে তা বলা মুশকিল। নিজেরা নিজেদের গাছ কেটে অন্যদের মামলায় ফেলানোর সম্ভাবনাই বেশি। এর আগেও আজাহার আলীর গাছ কাটার ঘটনা ঘটে ছিল। নিজ মেয়ে জামাইয়ের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিয়েছিলেন তিনি। যদি সত্যিই অন্য কেউ গাছ কেটে থাকে তবে অবশ্যই তার বিচার হওয়া দরকার।

নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম নয়ন জানান, একজন কৃষকের কাছে ফসল তার সন্তানের মত। ভরা মৌসুমে নিজের ফসল নিজে কেটে ফেলা সম্ভব নয়। অপরাধী যেই হোক তাকে সনাক্ত করে আইনের আওতায় এনে চরম শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। পাশাপাশি নির্বাচন পরবর্তি সময়ে সহিংসতা বন্ধের দাবী জানান তিনি।

শাজাহানপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, প্রকৃত অপরাধীকে সনাক্ত করতে কাজ করছে পুলিশ। অপরাধী সনাক্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। © All rights reserved © 2020 ABCBanglaNews24
Theme By bogranewslive
themesba-lates1749691102