May 19, 2022, 10:20 pm
তাঁজাখবর
বগুড়ায় বিভাগীয় সাংস্কৃতিক দক্ষতা ও প্রশিক্ষন কর্মশালা সম্পন্ন শাজাহানপুরে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন শাজাহানপুরে সৎ বাবার সঙ্গে মায়ের তালাকের কারণে শিশু সামিউলকে হত্যা বগুড়ায় প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে আপওিকর ভিডিও থানায় অভিযোগ শাজাহানপুরে ফসলি জমি থেকে উদ্ধার হওয়া শিশুর লাশের সন্ধান লাভ  শাজাহানপুরের আড়িয়ায় ফসলের ক্ষেত থেকে শিশুর লাশ উদ্ধার  বিদেশ নয়,এখন বগুড়ার শেরপুরে তৈরি হচ্ছে বিদেশী কৃষি যন্ত্র বগুড়ার শাজাহানপুরে বিদ্যুতায়িত হয়ে টিন মিস্ত্রির মৃত্যু বগুড়ায় ১ হাজার পিস ইয়াবাসহ মাদক সম্রাট আসিক গ্রেফতার বগুড়ায় ১৩ বছর পর হত্যা মামলার পলাতক আসামি গ্রেফতার 

শাজাহানপুরে  স্কুলের সভাপতি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে চরম উত্তেজনা

সংবাদদাতার নাম:
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৪, ২০২২
  • 20 দেখা হয়েছে:

মিজানুর রহমান মিলন :

 

বগুড়ার  শাজাহানপুরে ফুলকোট ডা. আফাজ উল্লাহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটিতে সভাপতি ও অভিভাবক সদস্য মনোনয়ন নিয়ে চরম উত্তেজনা দেখা দিয়েছে ।  ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে গ্রামবাসীর মাঝে মারপিটও হয়। এতে উভয়পক্ষের মধ্যে অন্তত ৮ জন আহত হয়েছেন।

গত ২২  মার্চ মঙ্গলবার  রাতে এই মারপিটের ঘটনা ঘটে। এর আগে কমিটি গঠনে অনিয়ম নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন বিদ্যালয়ের শতাধিক শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

এ রিপোর্ট লেখা  পর্যন্ত উভয় পক্ষ থানায় অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন।

আর মারপিটে আহতদের বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

গ্রামের বাসিন্দা ও অভিভাবকরা জানান, ফুলকোট ডা. আফাজ উল্লাহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নামকরনটি দেশের প্রখ্যাত ঔপন্যাসিক রোমেনা আফাজের স্বামীর নামে করা। এছাড়া বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্ণর লুৎফর রহমান সরকারের চাচাতো ভাই হলেন ডা. আফাজ উল্লাহ সরকার। বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠাকালিন সময় থেকেই সরকার পরিবারের সদস্যরা বিদ্যালয়ের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

তারা আরও জানান, হঠাৎ করে ওই বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটিতে  ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এমদাদুল হককে সভাপতি ও তার সহযোগীদেরকে অভিভাবক সদস্য করা হচ্ছে এমন খবর জানতে পেরে বিদ্যালয়ের শতাধিক শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা ইউএনও বরাবর লিখিত অভিযোগ করা হয়।

এ ঘটনার জেরে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে রুহুল আমিন, মানিক মিয়া, বাবলু মিয়া, আসিফ সরকারসহ কয়েকজন সঙ্গী ফুলকোট মোবারক মার্কেট থেকে বাড়ি ফেরার সময় হামলার শিকার হন। মারপিটে তারা গুরুতর আহত হন। পরে তাদের গুরুতর আহত অবস্থায় তারা শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
হামলার শিকার ও অভিভাবক রুহুল আমিন বলেন, এমদাদুল হক ও তার সহযোগীরা অতর্কিতভাবে হামলা চালায়। এ সময় তারা বেদম মারপিট করে। একপর্যায়ে প্রাণ বাঁচাতে তারা দৌড়ে পালিয়ে রক্ষা পান। এঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

জানতে চাইলে, এমদাদুল হক জানান, বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাকে কমিটির অভিভাবক সদস্য হিসেবে মনোনীত করেছেন। তিনি যাতে অভিভাবক সদস্য হতে না পারেন সেই জন্য স্থানীয় ইউপি সদস্য ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নজরুল ইসলাম নয়নের নেতৃত্বে পরিকল্পিতভাবে তারা দলবল নিয়ে এসে তার বাড়িতে হামলা মারপিট করেছে। মারপিটে আবিদুর রহমান, আবু সাইদ, নজরুল ইসলাম ও আব্দুল হালিম আহত হয়েছে। আহতদেরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম নয়ন জানান, এমদাদুল হক নির্বাচনে হেরে গিয়ে সমাজে বিশৃংখলা সৃষ্টির চেষ্টা চালাচ্ছে। ঘটনার সময় তিনি তার এক স্বজনের মৃত্যুর খবর পেয়ে সেখানে গিয়েছিলেন। যেকোন ঘটনা ঘটলেই তাকে জড়ানোর চেষ্টা চালানো হচ্ছে। তাছাড়া বিদ্যালয়ের কমিটি গঠন নিয়ে গ্রামবাসির অভিযোগ তিনি জেনেছেন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের সাথে তার কথা হয়েছে। তাকে নিয়ম অনুযায়ী কমিটি করতে বলা হয়েছে। তবে বিতর্কিত যাতে না হয় সেই দিয়ে নজর দেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

ঔপন্যাসিক রোমেনা আফাজের ছেলে মন্তেজার রহমান ওরফে আন্জু জানান, তারাই বিদ্যালয়টিকে প্রতিষ্ঠা করেছেন। জন্মলগ্ন থেকে তাদের পরিবারের লোকজনই বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির দায়িত্ব পালন করে এসেছেন। হঠাৎ করে গ্রামের বিতর্কিত ব্যক্তিদেরকে নিয়ে বিদ্যালয়ের কমিটি গঠনের চেষ্টা করছে। কিন্তু গ্রামবাসিরা সেটা মেনে নিতে পারছেন না। এনিয়ে গ্রামবাসির সাথে একপক্ষের বিরোধ দেখা দিয়েছে।

উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা কামরুল হাসান জানান, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদ্যাপনের কারণে অভিযোগ তদন্তে দেরী হচ্ছে। অচিরেই সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে প্রতিবেদন জমা দেয়া হবে।

স্থানীয়ভাবে জানা গেছে, ফুলকোট গ্রামে এমদাদুল ও মানিক গ্রুপ নামে দুই পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। ইতিপূর্বে উভয় পক্ষ একে অপরের বিরুদ্ধে চুরি, জুয়া, চাঁদাবাজি, জমি দখল, মারপিটসহ সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের অভিযোগ তুলে গ্রামবাসির স্বাক্ষর নিয়ে প্রশাসন বরাবর লিখিত অভিযোগ ও মানববন্ধন করেছে। ওই সমস্ত ঘটনায় বিভিন্ন অনলাইন নিউজ  পোর্টাল,সাপ্তাহিক পত্রিকা সহ  স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় খবরও প্রকাশিত হয়েছে। এই দুই গ্রুপের মধ্যে তুচ্ছ ঘটনায় প্রায়ই হামলা, মারপিটের ঘটনা ঘটে।

শাজাহানপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, মারামারির খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। এখন পর্যন্ত কেউ কোন অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ বিভাগের আরো সংবাদ
সকল প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। © All rights reserved © 2020 ABCBanglaNews24
Theme By bogranewslive
themesba-lates1749691102